Bangla programming tutorials

Green Web SMS ডেলিভারি রিপোর্ট কিভাবে কাজ করে, এর গ্রহনযোগ্যতা কতটুকু ? অন্যদের সাথে পার্থক্য কি আছে ?

ডেলিভারি রিপোর্ট নিয়ে বিস্তারিত

Green Web SMS ডেলিভারি রিপোর্ট কিভাবে কাজ করে, এর গ্রহনযোগ্যতা কতটুকু ? অন্যদের সাথে পার্থক্য কি আছে ?

আজকে আমরা ডেলিভারি রিপোর্ট নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো, এই লেখাটি আমাদের এসএমএস ব্যবহারকারীদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ন তাই এটি অবশ্যই পরবেন ।

 

ডেলিভারি রিপোর্ট কিভাবে কাজ করে:

ধাপ ১: আপনি API/Portal থেকে এসএমএস লিখে প্রেরন করলেন ।

ধাপ ২: আপনার এসএমএসটি আমাদের ওয়েব সার্ভারে প্রসেস করে, কন্টেন্ট চেকিং, ব্যালেন্স ডিডাকশন সহ একটি ইউনিক নাম্বার সহ সেভ করে ।

ধাপ ৩: আমাদের ওয়েব সার্ভারটি আপনার এসএমএস কে ইউনিক নাম্বার সহ আমাদের লোকাল এসএমএস গেটওয়েতে প্রেরন করে, গেটওয়ে এটাকে encode করে ।

ধাপ ৪: লোকাল গেটওয়ে এটি SMSC তে প্রেরন করে, SMSC হলো টেলিকম অপারেটর কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত প্রসেসিং সেন্টার যার কাজ আপনার এসএমএস রিসিভারের নিকটবর্তী নেটওয়ার্ককে প্রেরন করা ।

ধাপ ৫: নেটাওয়ার্ক এটি রিসিভারের মোবাইলে প্রেরন করার চেস্টা করে, যদি প্রেরন করতে পারে তবে এটি ফিরতি সিগানাল দেয় SMSC তে, যদি না পারে তবে কেনো পারেনি তারও সম্ভাব্য কারনসহ ডেটা দেয় ।

ধাপ ৬: রিসিভারের মোবাইল sms টি গ্রহন করে encoded অবস্থাতে এবং এটি ডিকোড করে স্টোরেজে সেভ করে ।

ধাপ ৭: SMSC ফিরতি সিগনাল আমাদের লোকাল সার্ভারে প্রেরন করে ।

ধাপ ৮: আমাদের লোকাল সার্ভার সিগনালকে ডিকোড এবং অ্যানালাইজ করে তা ওয়েব সার্ভারে প্রেরন করে যা আপনারা দেখতে পান ।

 

এখানে যদি লক্ষ্য করেন তবে দেখতে পারবেন যে আমাদের কাজ শুধু মাত্র ধাপ ১ থেকে ধাপ ৩ পর্যন্ত অর্থাৎ এসএমএস ডেলিভারির মেইন কাজটা মূলত টেলিকম অপারেটর করে । আমাদের কাজ হলো অপারেটর পর্যন্ত আপনার ডেটাকে প্রেরন করা ।

 

ডেলিভারি রিপোর্ট না আসার কারন:

অনেক সময় এসএমএস সঠিকভাবে সেন্ড হবার পরও ডেলিভারি রিপোর্ট আসে না অথবা অনেক দেরিতে আসে অথবা রিসিভার এসএমএস মোবাইলে পেলেও ডেলিভারি রিপোর্ট আসে না, এখানে অনেক গুলো কারনের জন্য ডেলিভারি রিপোর্ট না আসতে পারে । মূলত ডেলিভারি রিপোর্ট হ্যান্ডেল করা খুবই কঠিন কাজ, কারন আনেকগুলো ধাপ অতিক্রম করেই ফিরতি সিগনালটি আসে যে কারনে এটি যে কোনো একটি ধাপে ফেইল করতে পারে । কিন্তু চিন্তিত হবেন না, এর ব্যবস্থাও আছে । প্রথমে আমরা কারন গুলো জেনে নেই এরপর বলা হবে কি ব্যবস্থা নেয়া হয় ফেইল এসএমএস এর জন্য ।

 

ডেলিভার না/দেরীতে হবার কারন:


১. রিসিভার এর মোবাইল বন্ধ কিংবা তার মোবাইলে SMSC Number ভুল/ইনভ্যালিড ভাবে দেওয়া আছে ।
২. রিসিভার এর নাম্বার বায়োমেট্রিক রেজিস্ট্রেশন করা হয় নি কিংবা উক্ত নাম্বারের সিমকার্ড অচল অবস্থাতে আছে ।
৩. রিসিভার এর মোবাইলে নেটওয়ার্ক সিগনালে সমস্যা কিংবা নেটওয়ার্ক সংযোগ হতে বিচ্ছিন্ন আছে ।
৪. এসএমএস ডেলিভার হয়েছে কিন্তু ডেলিভার এর ফিরতি সিগনাল রিসিভার এর অপারেটর এখনো প্রেরন করেনি ।
৫. রিসিভারের SMSC এখন ব্যস্ত আছে তাই queue তে ম্যাসেজ রেখেছে ।
৬. অনেক বেশী এসএমএস একসাথে প্রেরন করা হয়েছে তাই গেটওয়ে queue তে রয়েছে ।
৭. BTRC এসএমএস কে স্প্যাম হিসেবে ব্লক করলে ।
৮. ইন্টারনাল নেটওয়ার্ক সমস্যা হয়েছে যেমন নির্দিষ্ট এলাকা বা জোনের এক অপারেটর ব্যবহারকারীরা অন্য অপারেটরএর ব্যবহারকারীদের এসএমএস দিতে পারছে না । এই সমস্যা মাঝে মধ্যেই বাংলালিক এ দেখা যায়, জিপি থেকে বাংলালিক, রবি থেকে বাংলালিকে এসএমএস যায় না কয়েক ঘন্টার জন্য এটি হলে ।

 

এবার জেনে নেই এসএমএস আমাদের জন্য ফেইল হবার কারন এবং প্রতিকার:


১. আমাদের ওয়েব সার্ভার যদি অফলাইন থাকে তবে আপনি SMS প্রেরন করতে পারবেন না । প্রতিকার : আমরা টায়ার ৩ ডেটাসেন্টারের ডেডিকেটেড সার্ভার ব্যবহার করি ওয়েব এর কাজ করতে যার আপটাইম ৯৯.৯৯৯৯+ । সুতরাং এটি সাধারনত হয় না ।
২. আমাদের লোকাল সার্ভার বন্ধ/অফলাইন থাকলে । প্রতিকার: আমরা ব্যাকআপ সার্ভার ব্যবহার করি একটি বন্ধ হলে অন্যটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে সচল হয় । তাই এটিও সাধারনত হয় না ।
৩. অপারেটর SMSC তে সমস্যা হলে । প্রতিকার: তারাও ব্যাকআপ সার্ভার ব্যবহার করে ।

উপররের থেকে বুঝতে পারছেন আমাদের জন্য এসএমএস ফেইল হবার সম্ভাবনা খুবই কম । তাহলে ফেইল হয় কেন ?
১. রিসিভারের ফোন নেটওয়ার্ক এর বাহিরে থাকলে, অথবা সে এখন যে নেটওয়ার্কে আছে সেখান কার সিগনাল দুর্বল হলে ।
২. রিসিভারের ফোনে SMSC ভুল/ইনভ্যালিড দেওয়া থাকলে, অনেক সময় সিম এর SMSC ঠিক ভাবে রিড করতে পারেনা হ্যান্ডসেট । দেখা যায় এটি রিড করতে ফেইল করেছে তখন কয়েক ঘন্টা পর আবার রিড করার চেস্টা করে । ধরা যাক ১ ঘন্টা পর রিড করতে পেরেছে এক্ষেত্র্রে ১ ঘন্টার মধ্যে যত এসএমএস প্রেরন হবে সব ফেইল করবে ।
৩. রিসিভারের ফোনের রম এবং সিপিউ দুর্বল হলে, আমরা চেক করে দেখেছি ওয়ালটন, সিম্ফনি সহ কিছু কমদামী হ্যান্ডসেট এই সমস্যা দেখা দেয় । এসএমএস সঠিকভাবে প্রেরন হয়, হ্যান্ডসেট থেকে নেটওয়ার্কে সিগনালও যায় এসএমএস রিসিভ হয়েছে কিন্তু মোবাইলে ম্যাসেজ show করে না । কারন হ্যান্ডসেটটি ম্যাসেজটি ডিকোড করতে পারেনি অথবা ডিকোড করে ম্যাশিন ল্যাংগুয়েজ থেকে হিউম্যান রিডঅ্যাবল করতে পারেনি ।
৪. রিসিভারের স্টোরেজ ফুল/অনেক এসএমএস জমা আছে/ স্টোরেজ দুর্বল তাই এসএমএস স্টোরেজে সেভ করতে ব্যর্থ হয়েছে ।

উপরের লেখাটি পড়ে এখন বুঝতে পারছেন ফেইল হবার জন্য মূলত রিসিভারের হ্যান্ডসেট অথবা অপারেটর এর ইন্টারনাল সমস্যা ( র‌্যায়ারলি ঘটে ) দ্বায়ী । এজন্যই পূর্বে বলেছি আমাদের কাজ এসএমএস ঠিক মত SMSC তে গেল কিনা তা নিশ্চিত করা, পরবর্তি ধাপগুলোতে আমাদের নিয়ন্ত্রন নেই ।
যদি আমাদের গেটওয়ে বা ওয়েব সার্ভারে সমস্যা হয় যেমন মেইনটেনেন্স এর জন্য বন্ধ রাখা হয় এক্ষেত্র্রে এসএমএস ফেইল হয় না তবে সেন্ড হতে দেরী হয় ।


সবকিছু কিছু সঠিক আছে আমি ১০০০০ টা সচল এবং সঠিক নাম্বারে SMS দিয়েছি, ১০০০০ টা নাম্বারই আমার সামনে আছে ডেলিভারি রিপোর্ট কি ১০০% ডেলিভারর্ড আসবে ?

এক্ষেত্র্রে ১০০০০ টি নাম্বারই এসএমএস পাবে ১০০% গ্যারাটি দিতে পারবো আমরা কিন্তু পোর্টালে আপনাকে ১০০% ডেলিভারি সফল না দেখিয়ে ৯৫-৯৮ % সফল দেখাতেও পারে । তাহলে ঐ ৫-২% এর রিপোর্ট কেনো আসলো না ? কারন হলো অনেক সময় অসংখ্য এসএমএস প্রেরন করলে সিস্টেম কে অনেক কাজ করতে হয় ।
যেমন একটি এসএমএস এর জন্য ৮ টি ধাপ অতিক্রম করতে হয়েছে । সুতরাং ১০০০০ এসএমএস এরজন্য ৮০০০০ হাজারটা ধাপ অতিক্রম করতে হবে । এতো এতো প্রেসেসিং এরজন্য দেখা যায় কিছু কিছু ডেলিভারি রিপোর্ট সার্ভার হ্যান্ডেল করতে ব্যর্থ হয় । কারন সার্ভারেরও প্রসেসিং লিমিট থাকে ।

তাহলে সেন্ড এর ক্ষেত্রে এই সমস্যা কেন হয় না? শুধু ডেলিভারি এর ক্ষেত্রে কেনো হয়?

কারন আপনি যে এসএমএস টি সেন্ড করেছেন তা প্রথমে আমাদের ওয়েব সার্ভারে রাখা হয়, আর এটি গেটওয়ে তে যতক্ষন না সফল ভাবে প্রেরন করতে পারে ততক্ষন নিজে নিজে রিট্রাই করতে থাকে । আবার গেটওয়ে একই ভাবে SMSC তে যতক্ষন না সঠিকভাবে প্রেরন করতে পারে ততক্ষন ট্রাই করতে থাকে ।
ধারুন গেটওয়ে smsc তে প্রেরন করার ট্রাই করলো পারলো না এটি queue তে রেখে দেয় এরপর ৫ মিনিট পর আবার ট্রাই করে । এভাবে সাকসেসফুল না হওয়া পর্যন্ত ট্রাই করে । কিন্তু ডেলিভারি এর ক্ষেত্রে এটা হয় না, এসএমএস ডেলিভারি করার পর অপারেটর একবারই শুথুমাত্র ফিরতি সিগনাল
প্রেরন করে আর ঐ সময় যদি আমাদের সার্ভার ওটা ক্যাচ করে প্রসেস করতে না পারে তাহলে রিপোর্ট আপডেট নেয় না । অপারেটর লেভেলে যদি রিট্রাই সিস্টেম থাকতো তবে ১০০% রিপোর্ট ইনসিউর করা যেত । এটি অপারেটর লেভেলে লিমিট, আমরা এজন্য অনেক শক্তিশালী সার্ভার ব্যবহার করি যাতে রিপোর্ট মিস না হয়, কিন্তু যেহেতু এটা হার্ডওয়্যার তাই এরও প্রসেসিং লিমিট আছে । এজন্য অনেক এসএমএস প্রেরন করলে অনেকসময় এসএমএস সফল ভাবে ডেলিভার হলেও রিপোট আসে না ।


মার্কেটিং এসএমএস ডেলিভারি রিপোর্ট নিয়ে কিছু কথা:

যারা মার্কেটিং করেন তারা সাধারনত বিভিন্ন সোর্স থেকে নাম্বার কালেক্ট করেন, যেমন অনলাইন পোর্টাল । দেখা যায়, এসব নাম্বার এর অনেক নাম্বারই এখন আর সচল নেই, বায়োমেট্রিক রেজিস্টেশন করা হয়নি । তাই মার্কেটিং এসএমএস এ অনেক সময় দেখা যায় অনেক ডেলিভারি রিপোর্ট আপডেট নিয়েছে আবার অনেক সময় অল্প নিয়েছে । মূলত নাম্বার গুলো ঠিক আছে কিনা এক্ষেত্রে এর নিশ্চয়তা থাকে না । আপনি হয় তো কোথাও থেকে ৫০০০০ হাজার নাম্বার কালেক্ট করেছেন যার ৫০০০০ হাজারই একটিভ হতে পারে আবার ৫টি নাম্বারও একটিভ হতে পারে । এটি বলা সম্ভব না কতগুলো একটিভ ।
আর এই সুযোগ টাই বাংলাদেশের অনেক সুনামধন্য প্রতিষ্ঠান নেয় । নিচের ছবি টি দেখুন এটি বাংলাদেশের অন্যতম একটি প্রোভাইডার থেকে নেওয়া তারা রিপোর্ট এ শুধু মাত্র সেন্ডিং স্ট্যাটাস দেখিয়েছেন এটি কিন্তু ডেলিভারি স্ট্যাটাস না । কারন এখানে যে নাম্বারে চেক করার জন্য আমি এসএমএস করেছি এটি একটি বাতিল সিমের নাম্বার তারা স্ট্যাটাসে success দেখাচ্ছে যা দেখে আমি ধরে নিচ্ছি এসএমএস টি গিয়েছে

 


সুতরাং আপনি যদি মার্কেটিং এরজন্য ১০০০০০ নাম্বারে এসএমএস করেন তবে দেখবেন তাদের পোর্টালে সব নাম্বারই অলমস্ট সাকসেসফুল দেখাবে আর আপনি তা দেখে খুশি হয়ে যাবেন যে সব নাম্বারে এসএমএস গেছে । আসলে সব নাম্বারে কিন্তু ডেলিভার হয়নি, সেন্ড হয়েছে । সেন্ড আর ডেলিভার আলাদা জিনিস, তারা সেন্ডটাকে দেখাচ্ছে আর আপনি ধরে নিয়েছেন এটি ডেলিভার হয়েছে । এসএমএস সব সময় সেন্ড হয়, সেন্ড এ সাধারনত কখনোই ফেইল করে না নাম্বার ঠিক থাকলে । তারা যদি ১০০% সেন্ড করতে পারে আমাদের এখানোও ১০০% ই সেন্ড হবে । কিন্তু ডেলিভারি তারা কতগুলো করেছে বলতে পারবেন ? পারবেন না কারন সেই ইনফো এখানে নেই কিন্তু আমাদের পোর্টালে আছে । তাদের ফোন কনে কিংবা অন্যভাবে এটি নিতে হয় যা হয়তোবা অনেকেই নেন না বা জানেনও না এতো প্যাচালো জিনিস ।

গ্রিন ওয়েবে এ কাজ করা হয় না, এখানে ডেলিভার না হলে Sent But Not Delivered/ Sent but Status not Updated টাইপ ম্যাসেজ দেখায় । নিচে দেখুন সেম বন্ধ নাম্বারে এসএমএস করা হয়েছে । এবার নিজেরাই কম্পেয়ার করুন কোনটা বেশী স্বচ্ছ রিপোর্ট দিচ্ছে ।

 

অর্থাৎ আমাদের সিস্টেম ট্রান্সপারেন্ট । আর ট্রান্সপারেন্ট বলে অনেকেই ভুল বুঝে, অনেকে বলে অন্যদের ওখানে ১০০% সাকসেসফুল দেখায় আপনাদের ৮০-৯০% কেন ? কারন আমাদের এখানেও ১০০% সাকসেসফুল হয় সেন্ডিং এ কিন্তু ডেলিভারি তে হয়তোবা হয় না  (শুরুতে উল্লেখিত কারনের জন্য) কিন্তু আপনি আমাদের ডেলিভারি রিপোর্ট এর সাথে তাদের সেন্ডিং রিপোর্ট এর কম্পেয়ার করেন !  অন্যরা যা দেখায় তা আমরা দেখাই না যদি অন্যদের জিনিস দেখাতাম তবে বন্ধ বা বাতিল নাম্বারেও সাকসেসফুল দেখতেন যেমনটা উপরে দেখছেন, তারা লজিক্যালি কিন্তু ঠিক । কারন তাদের কাজ এসএমএস সেন্ড করা, বাকি কাজ অপারেটর আর রিসিভারের so  যেহেতু তারা সেন্ড করতে পেরেছে তাই সাকসেসফুল দেখাচ্ছে । মাঝে মধ্যে মনে হয় আমরাও তাদের টেকনিক ফলো করি কারন আপনারা ভালো জিনিসের দাম বুঝেন না । এটি যে সবাই করে তা কিন্তু না অনেকই হয়তোবা সঠিক রিপোর্ট দেয় তবে আমরা অধিকাংশ বড় প্রতিষ্ঠানে এমনটি পেয়েছি ।

আমরা ট্রান্সপারেন্ট বলে নাম্বার ডেটাবেজ সেল করি না, ফুল ডেলিভারী রিপোর্ট দেই এবং স্বল্প দামে এসএমএস দেই এরপরও আমাদের মূল্য আপনাদের কাছে নেই । ২০১৬ তে যখন আমরা সার্ভিস শুরু করি তখন বাংলাদেশের প্রোভাইডার দের যা অবস্থা ছিলো সে সময়ে সিম্পল ভাবে রেজিস্টেশন এবং এসএমএস প্রেরনের ব্যবস্থা আমরা করি ।এখনো আমাদের সিস্টেম বাংলাদেশের সবথেকে সহজ এবং গোছানো সিস্টেম ।
প্লাগইন, API, inbox system কি নেই ? সবই আছে, শুধু কিছু মানুষের কান্ডজ্ঞান ছাড়া যারা TOS পরেও এসে মানুষকে আজে বাজে SMS প্রেরন করে ডিস্টার্ব করে । অন্যদের মত আমরা রেজিস্টেশন এর জন্য ঘুরাই না, অতিরিক্ত চার্জ কিংবা এক কালীন অনেক এসএমএস কিনতে বলি না, আর এ জন্য  Abuser রা সুযোগ পেয়ে যায় Abuse করার । তারা আসে ৫০ টাকার এসএমএস কিনে, মেয়েদের উত্যক্ত্য করে যখন অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয় কাস্টমার সাপোর্টে ফোন করে অসভ্য আচরন করে । ২১% ইউজারই আমাদের abusers ! আমাদের ৪৫০০+ ক্লাইন্ট আছে এখন ( ২৪-০৭-২০২০ তারিখ পর্যন্ত ) আর ৯৮০ জনের মত অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ডেড আছে । ভাবুন তাহলে কাদের সাথে প্রতিনিয়ত আমাদের লড়াই করতে হয় ।


একটাই অনুরোধ, নিয়ম মেনে চলবেন, দয়া করে ব্যক্তিগত ম্যাসেজ দিবেন না । যদি দেন তবে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হবে, এরপর যত কাহিনীই করুন না কেন লাভ হবে না এমনি নতুন অ্যাকাউন্ট খুললেও তা বন্ধ করে দেওয়া হবে । আপনার সোনাবাবুদের কে ব্যক্তিগত ম্যাসেজ, কাকে মেরে ফেলবেন সে হুমকি কিংবা প্রাংকের ম্যাসেজগুলো ব্যক্তিগত ফোন থেকে দিন, বিজনেস সিস্টেম থেকে না । বিজনেস সিস্টেম শুধুমাত্র বিজনেস এর জন্য । 


Share This Post to Keep This Site Alive

Like FanPage: Like Post:

Comments

No comments to display for this post.

Leave A Feedback


Captch(Enter the number on the below field): 889