Bangla programming tutorials

অাপনার ওয়েবসাইট স্লো লোড নিচ্ছে ? কারন এবং সমাধান দেখে নিন

সাইট স্লো লোড নিচ্ছে ? অনেক অপটিমাইজেসান করেও সমাধান পাচ্ছেন না ?

অাপনার ওয়েবসাইট স্লো লোড নিচ্ছে ? কারন এবং সমাধান দেখে নিন

ওয়েব সাইট স্লো লোড নিলেই অামরা ধরে নেই এর পিছনে সার্ভারের হাত অাছে কিন্তু অনেক সময় অাপনার এ ধারনা ভুল হতে পারে । কথা না বাড়িয়ে অাগে কারন গুলো বলে নেই :

স্লো লোড নেয় কারন:

১. সাইটের সাইজ অনেক বেশী হলে  : 

বলা হয় সাইটের সাইজ সর্বোচ্চ ৬০০-৭০০ কেবির মধ্যে রাখতে হবে । এটি স্ট্যাডান্ড সাইজ, কিন্তু অধিকাংশ সাইটে একাধিক ছবি ব্যবহার করার ফলে সাইট সাইজ এই সীমার মধ্যে থাকে না । মনে রাখবেন সাইট লোডিং টাইম বেশী হবার পিছনে হাত এর সব থেকে বেশী ।

সমাধান: সাইটের সব ছবি কে compress করতে হবে । এ কাজের জন্য tinypng.com সাইটটি ব্যবহার করুন । এটি অসাধারন কাজ করে । যারা wordpress ব্যবহার করেন তারা WP SMASH প্লাগইন ব্যবহার করুন ।

এছাড়াও সাইটে জাভাস্ক্রিপ্ট যতটা সম্ভব কম ব্যবহার করবেন । এবং অবশ্যই Javascript ফাইল কে মিনিফাই করবেন । এটা খুব জরুরী । একই কখা CSS ফাইলের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য । 

CSS Compress করতে : csscompressor.com সাইট ব্যবহার করুন ।

javascript ফাইলগুলোকে footer এ রাখবেন, হেড এর মধ্যে না ।  ছবি যদি বেশী থাকে সাইটে তবে অবশ্যই লেজি লোডিং সিস্টেম ব্যবহার করবেন ।

 

২. http Request সংখ্যা বাড়াবেন :

অাপনার এটি পেজে যদি ২টি ছবি থাকে অার ২টি ছবি যদি same origin থেকে লোড নেয় যে সময় লাগবে যদি দুটি অন্য origin থেকে লোড নেয় তবে অনেক কম সময় লাগবে । কারন ব্রাউজার ৮-১৬ টি রিকোয়েস্ট একসাথে প্রসেস করে সাধারনত । সুতরাং যথন অরিজিন সেম হবে তখন ইমেইজগুলো এক এক করে লোড নিবে । অর্থাৎ একটি ছবি পুরোপুরি লোড নেবার পর অপরটি নিবে । কিন্তু অরিজিন অালাদা হলে একাসাথে নিবে । ধরুন ২টি ছবি যদি লোড নিতে ১০ সেকেন্ড লাগে যদি একই সার্ভারে থাকে তবে অালাদা সার্ভারে এদের রাখলে সময় লাগবে ৫ সেকেন্ড ।

কল্পনা করতে পারছেন ব্যাপার টা ! CDN এর নাম অনেকেই শুনে থাকবেন । CDN দিয়ে এই কাজ টাই করা হয় মূলত । টাকা দিয়ে CDN কিনতে হবে না ব্লগস্পট সাইট বানিয়ে ইমেইজ তাতে অাপলোড করে সাইটে লিংক লাগান তাহলেই হয়ে গেল । 

তবে মনে রাখবেন http request সংখ্যা যাতে ৪৫ টির বেশী অাবার না হয় ।

 

৩. সার্ভার রিস্পন্স টাইম :

এটি খুব একটা গুরুত্বপূর্ন না যদি না রিস্পন্স টাইম ২ সেকেন্ডের বেশী হয় । যদি ২ সেকেন্ডের বেশী হয় তবে সার্ভার প্রোভাইডার কে জানান তারা ব্যবস্থা নিবে । 

কিভাবে চেক করবেন? প্রথমে দেখে নিন অাপনার ইন্টারনেট স্পিড ১০০ কেবি+ অাছে কিনা । www.speedtest.net থেকে দেখা যাবে এটা । এরপর অাপনাকে অাপনার হোস্টিং সার্ভারের অাইপি কে পিং করে দেখতে হবে । হোস্টিং সার্ভারের অাইপি বের করতে হলে https://myip.ms/ সাইটে যান অাপনার নিজের সাইটের এড্রেস লিখে কিংবা হোস্টিং প্রোভাইডারের নেমনার্ভারের ( সাইটের না নেমসার্ভারের ) এড্রেস লিখে whois lookup এ ক্লিক করুন ।

https://myip.ms/info/whois/216.158.229.228/k/555320162/website/ns1.greenweb.com.bd

216.158.229.228 এটা গ্রিনওয়েবের অা্‌ইপি । এবার অাপনার পিসি তে cmd prompt বের করে লিখূন 

ping 216.158.229.228

এবং রিস্পন্স টাইম দেখুন । 

bd server response time

মনে রাখবে অাপনার নেট স্পিড যেন ১০০কিলোবাইট+ হয় ।

অনলাইনে অনেক সাইট অাছে যেমন গুগল ইনসাইটেও দেখায় যদি সার্ভার রিস্পন্স টাইম বেশী হয়, এগুলোর রেজাল্টকে ট্রাস্ট করবেন না । কারন, সার্ভারের অাইএসপি সিকিউরিটি সিস্টেম (ফায়ার ওয়াল) অনেক সময় সার্চ ইন্জিন স্পাইডারকে কিংবা বুট রিকোয়েস্ট ( ইউজার রিকোয়েস্ট নয় header এ এমন) আলাদা ভাবে স্ক্যান করে প্রবেশ করার পারমিশন দেয় অার এই স্ক্যানিং টা করে সার্ভারের অাইএসপি তে থাকা ফায়ারওয়্যাল সিস্টেম যে কারনে সময় বেশী লাগে রিস্পন্স টাইম বেশী দেখাবে । রিস্পন্স টাইম দেখার সবথেকে কার্যকরি উপায় হলো কমান্ড থেকে পিং করা ।

 

৪. সার্ভার লোকেশান:

বাংলাদেশীদের জন্য টেক্সাস কিংবা এর কাছাকাছির অন্ঞলের সার্ভার ব্যবহার করা উচিত কারন বাংলাদেশের ইন্টারনেট গেটওয়ে খুব দ্রুত ডাটা কানেশান তৈরী করতে পারে এক্ষেত্রে । অনেকের ধারনা বাংলাদেশী সার্ভার ব্যবহার করলে স্পিড বেশী পাওয়া যাবে এই ধারনাটি সম্পর্ন ভুল যেটা সামনেই ভিডিও সহ দিবো এবং কেন ভুল তাও ব্যাখ্যা করবো ।  অনেকে মনে করেন এক্ষেত্রে ডাটা কে কম দূরত্ব অতিক্রম করতে হয় বলে স্পিড বেশী থাকে, এটা সত্যি কিন্তু ভাই ডাটা তো রেলগাড়ি কিংবা গরুর গাড়িতে ট্রান্সফার হয়না যে ট্রান্সফার হতে অনেক সময় লাগবে । ডাটা অালোর গতিতে ট্রান্সফার হয় । তাহলে স্পিড পার্থক্য হয় কেন? এই প্রশ্নের উত্তর এতো টাই বড় যে অাজ অার লেখা সম্ভব না । পরবর্তী কোনো সময়ে দিবো ।

অাপাতত জেনে রাখুন নেদারল্যান্ডের সার্ভার ব্যবহার করবেন না কিংবা ক্যানাডা এর ।

 

অাশা করি টিউটোরিয়ালটি কেমন লেগেছে জানাবেন । অনেক কে দেখলাম অামার লেখা টিউটোরিয়ালকে নিজেদের নামে চালাই দিতে ! এভাবে কতদিন ভাই ! ফেসবুকের পর ফেসবুকের নকল করে অনেক সাইটই অাসছে কোনোটা টিকতে পারেনি কারন স্বকীয়তা ছিলো না বলে । লেখার লিংক সহ শেয়ার করুন এতে মানুষের সন্মান বাড়বে অাপনার প্রতি অন্যাথায় যেদিন ধরা পড়বেন ভিজিটর হারাবেন, চোর উপাধিও পাবেন ।

লিখেছেন:

মো: জোবায়ের অালম

ফাউন্ডার, গ্রিনওয়েব

 


Share This Post to Keep This Site Alive

Like FanPage: Like Post:

Comments

nio

nio (2019-01-23 18:28:16)

ইন্টারনেট স্পিড কি কি (কিসের) এর উপর নির্ভর করে... তা, নিয়ে দয়া করে একটা পোস্ট করুন। আর বাংলাদেশি ডিনএস ব্যবহার করলে কি স্পিড কিছুটা বারতে পারে নাকি cloudfare ব্যবহার করলেও হবে?

Leave A Feedback


Captch(Enter the number on the below field): 171